২১ দিনের লকডাউন অবৈজ্ঞানিক ও যুবকদের ধ্বংস করেছে; ভিডিও বার্তায় বললেন রাহুল গান্ধী

দেশ

নজর বাংলা ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র সরকার কে যে কোনো বিষয়ে আক্রমণ করতে সিদ্ধহস্ত। মাঝে মাঝেই কেন্দ্র সরকার কে আক্রমণ করে তুলোধুনা করেন তিনি। আর আজ, ফের লকডাউন ও বেকার ইস্যুতে কেন্দ্র কে আক্রমণ করলেন তিনি।

এদিন, সাংসদ রাহুল গান্ধী বুধবার দাবি করেছেন করোনাভাইরাসের সংকটের প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকার যে হঠাৎ লকডাউন করেছিল তা দেশের যুব সমাজের ভবিষ্যত, দরিদ্র ও অসংগঠিত অর্থনীতির আক্রমণ করার নামান্তর। রাহুল গান্ধী একটি ভিডিও বার্তার মধ্যে এই সমস্ত বিষয়ের কথা উল্লেখ করে দেশের মানুষকে এর বিরুদ্ধে সােচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

টুইট করে রাহুল গান্ধী জানিয়েছেন,”হঠাৎ করে লকডাউন করা অসংগঠিত বর্গের ক্ষেত্রে মৃত্যুদণ্ডের সমান বলে প্রমাণিত হয়েছে। প্রতিশ্রুতি ছিল ২১ দিনের মধ্যে করোনার শেষ করার। কিন্তু শেষ করা হয়েছে কোটি কোটি রােজগার এবং ছােট ব্যবসায়ীদের।”

এরপর এই টুইটের সঙ্গে পােস্ট করা নিজের ভিডিও বার্তায় রাহুল গান্ধী বলেছেন,”করানোর নামে যা করা হয়েছে তা অসংগঠিত ক্ষেত্রে ওপর তৃতীয় আক্রমণ ছিল। গরিব লােকেরা, ক্ষুদ্র এবং মধ্যম মানের ব্যবসায়ীরা রােজায় করেন এবং রােজ খান। কিন্তু আপনি কোনাে নােটিশ ছাড়াই লকডাউন করে এদের ওপর আক্রমণ করলেন।”

তিনি আরাে বলেন,”প্রধানমন্ত্রী যে বলেছিলেন ২১ দিনের লড়াই হবে। অসংগঠিত ক্ষেত্রের মেরুদন্ডের হাড় ওই ২১ দিনেই ভেঙে যায়। শুধু তাই নয়, রাহুল গান্ধী বলেছেন, শাসকদলের অভিমত অনুযায়ী যখন লকডাউন খােলার সময় উপস্থিত হয়েছে, সে সময় কংগ্রেস পার্টির পক্ষ থেকে বারবার অনুরােধ করা হয়েছে যে দরিদ্রদের সহায়তা করতে হবে, ন্যায় যােজনার অনুরূপ একটি যােজনা লাগু করতে হবে, ব্যাংকের একাউন্টে সরাসরি টাকা পৌঁছে দিতে হবে। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে তাদের কোন অনুরােধ কানে তােলা হয়নি।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *