BJP: টিকার দাম তেলে তুলছে কেন্দ্র, স্বীকার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর। জলের সঙ্গে তেলের তুলনাও টানলেন তিনি। কটাক্ষ কংগ্রেসের

দেশ

নজর বাংলা ওয়েব ডেস্ক: বিজেপির শাসনে ক্ষণে ক্ষণে মহার্ঘ হয়েছে পেট্রো-পণ্য। এত চড়া দাম চোকাতে নাভিশ্বাস উঠেছে মধ্যবিত্তের। তার উপর রয়েছে করোনার প্রোকোপ, লকডাউন। তবে পেট্রো-পণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে পরোক্ষ করোনাকেই দুষলেন কেন্দ্রীয় বিজেপি মন্ত্রী।

 

পেট্রল-ডিজেল কেন এত দামি, কেন প্রায় দিন‌ই বাড়ছে দাম? তার উত্তর দিলেন কেন্দ্রীয় পেট্রলিয়াম প্রতিমন্ত্রী রামেশ্বর তেলি। আজ তিনি সংবাদসংস্থা কে জানান, “(করোনা) টিকা নিতে টাকা দেননি, তাই তেল কিনতে বেশি টাকা তো দিতেই হবে!”

 

এখানেই অবশ্য থামেননি তিনি, তেলের সঙ্গে বোতলের পানীয় জলের দামের তুলনা করে তিনি বলেন, “যদি ‘হিমালয়ান ওয়াটার’ কিনতে হয়, তাহলেও তো বোতল প্রতি ১০০ টাকা দিতে হয়। তেলের দাম তো তুলনায় কমই!”

 

তেলি হিসেব দেন, “টিকা প্রতি সরকারের খরচ হয় ১২০০ টাকা। ১৩০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে টিকা দিতে হচ্ছে বলেই কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলি তেলের দামে ভ্যাট যোগ করছে। না হলে সরকার টাকা পাবে কোথা থেকে?” অসমের সাংসদ তেলি আরও দাবি করেন, “কেন্দ্র যেখানে তেলের দামে ৩০ টাকা ভ্যাট যোগ করেছে, অসম সেখানে সবচেয়ে কম, লিটার প্রতি মাত্র ২৮ টাকা ভ্যাট নিচ্ছে।” এই সূত্রে তেলি উল্লেখ করেন, “এমনিতে এক লিটার পেট্রলের দাম মাত্র ৪০ টাকা।”

 

তেলির এই মন্তব্য প্রসঙ্গে কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী সভাপতি জাকির হুসেন শিকদার বলেন, “তেলিকে ধন্যবাদ। মোদী সরকারের জনকল্যাণের মুখোশের আড়ালে আসল চেহারাটা ফাঁস করে দিয়েছেন। তেলি চা শ্রমিক শ্রেণির সরল নেতা। দেখা হলে তাঁকে গামোসা পরিয়ে সংবর্ধনা দেব। সত্যি কথা বলায় তাঁর মন্ত্রিপদ থাকলে হয়।”

 

গোটা দেশে চলছে করোনার টিকা করণ কর্মসূচি। ফ্রী তেই করোনার ভ্যাকসিন পাচ্ছে জনগণ। কিন্তু তা যে ফ্রী নয়, তেলের দাম চড়িয়ে কেটে নেওয়া হচ্ছে, তা কার্যত স্বীকার করল বিজেপি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *