আর্থিক সংকটে সায়েন্স সিটি, সাহায্যের আবেদন কেন্দ্রকে

দেশ বিজ্ঞান

নজর বাংলা ডিজিটাল ডেস্ক: গোটা বিশ্ব জুড়ে চলছে করোনার দাপট। চলছে মৃত্যু মিছিল। দিনের পর দিন কাজ হারাচ্ছে বহু মানুষ। ক্রমশ হতাশা গ্ৰাস করছে মানুষ কে। আর এবার তারই প্রভাব পরল সায়েন্স সিটিতে। প্রতি বছর গড়ে ১৫ লক্ষ করে দর্শক আসেন এখানে। এই দর্শক দের কাছ থেকেই প্রতি বছর ৭০% টাকা আয় করতে পারে সায়েন্স সিটি। আর বাকি টাকা উঠে আসে সায়েন্স সিটির দু’টি অডিটোরিয়াম ও মেলার মাঠ ভাড়া দিয়ে।

কিন্তু, এই পরিস্থিতিতে, এতগুলো খাতের কোনো খাত থেকেই টাকা আসছে না। আর তাই এবার কেন্দ্রের সাহায্য চাইল কলকাতা সায়েন্স সিটি। কলকাতার যে কয়েকটি দেখার জায়গা রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হল স্থান সায়েন্স সিটি। গ্রীষ্মের ছুটি, কিংবা শীতের মরশুম ভিড়ে জমজমাট থাকে সায়েন্স সিটি।

সায়েন্স সিটির সঙ্গে যুক্ত থাকেন প্রায় ২৭৫ জন কর্মী। তার মধ্যে ৭৫ জন হলেন সরকারি। ২০০ জনকে বিভিন্ন সংস্থা মারফত নিয়োগ করা হয়। এই সব কর্মীদের বেতন আয়ের ওপর নির্ভর করে।

কিন্তু এই বছর, এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে, কোনো আয় না থাকার কারণে অবস্থা খুবই খারাপ। এত বড় একটি প্রতিষ্ঠান চালাতে যে বিপুল পরিমাণ অর্থ প্রয়ােজন হয় তা কী ভাবে মিলবে? তার ফলে সায়েন্স সিটির অর্থনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে সায়েন্স সিটির ডিরেক্টর শুভব্রত চৌধুরী জানিয়েছেন, “এমন পরিস্থিতির শিকার আগ কখনও হতে হয়নি আমাদের। আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি উপায় খুঁজে বার করতে। সে কারণেই কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে আমরা জানিয়েছি। আশা করব সরকার আমাদের বিষয়ে ভাবনা চিন্তা করবেন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *